ইলিনা আমার দেখা সবচেয়ে সাহসী নারী

সানোবার কেশওয়ার

 


লেখক অধ্যাপক ও সমাজকর্মী

 

 

 

ইলিনা আমাদের ছেড়ে চলে গেছে। গত বছর আগস্টে ক্যান্সার হাসপাতালের ডাক্তাররা তাকে একমাস আয়ুষ্কাল দিয়েছিল। জীবনের প্রতি, সঙ্গীত, সৌন্দর্য, সাহিত্য ও মানুষের প্রতি তার এমনই ছিল টান যে একমাসের বদলে সে একবছর দৃঢ়তার সঙ্গে বাঁচল। সে আজ ৯ আগস্ট মারা গেল সন্ধে সাতটায়, কলকাতায় নিজের বাড়িতে। তাকে ঘিরে ছিল তার ভালোবাসার মানুষ বিনায়ক সেন, তার মেয়েরা— প্রাণহিতা ও অপরাজিতা এবং তার নব্বই-ঊর্ধ্ব মা।

ইলিনা সেন এক কিংবদন্তী নারী ছিল। তার জগত ব্যপ্ত ছিল পারমাণবিক অস্ত্র বর্জনের আন্দোলন থেকে শুরু করে কৃষিক্ষেত্রে উন্নততর পদ্ধতির সন্ধান পর্যন্ত। জনসম্পদের বেসরকারিকরণের বিরোধিতা থেকে শুরু করে খনিশ্রমিকের সন্তানদের লেখাপড়ার ব্যবস্থা করা পর্যন্ত। নারীবাদী সাহিত্যকে জনপ্রিয় করা থেকে শুরু করে গোন্দ শিল্পকলাকে মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া পর্যন্ত। গণআন্দোলনে নারীর ভূমিকাটি সে উজ্জ্বল করেছিল। সে ফয়েজ আহমেদ ফয়েজের গজল গাইতে পারত ততটাই অনায়াসে, যতটা সহজে আবৃত্তি করতে পারত অডেনের কবিতা। জটিল তত্ত্বকে সে জলের মতো সহজ করে বোঝাতে পারত, যাতে সকলেই তা বুঝতে পারে। বিভিন্ন বিষয়ে সে আবেগ ও বাগ্মিতার সঙ্গে বলে যেতে পারত একটানা। সে ছিল বিশ্বস্ত বন্ধু এবং অসামান্য শিক্ষক। সে আমার দেখা সবচেয়ে সাহসী নারী।

ডাক্তার বিনায়ক সেনকে অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করা হল। তিনি দীর্ঘদিন জেলে ছিলেন আদিবাসীদের উপর ঘটা অবিচারের প্রতিবাদ করার জন্য, ছত্তিশগড়ে সালওয়া জুড়ুমের কাজকর্মের প্রতিবাদ করার জন্য। সে সময় ইলিনার সাহস দেখেছিলাম। একদিকে সে আইনি লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিয়েছে। অন্যদিকে বিনায়ক সেনের মুক্তির জন্য সে বিশ্বব্যাপী জনমত গড়ে তুলেছে। একই সাহস নিয়ে সে লড়েছিল ক্যান্সারের বিরুদ্ধে শেষ যুদ্ধটা, যেখানে নিজ দেহই তার রণাঙ্গন। তার নাছোড় মনোভাব ও জীবনের প্রতি ভালবাসা চিকিৎসকদেরও অবাক করেছিল।

তার প্রথম বইটি ছিল, A Space within the Struggle। গণ আন্দোলনে নারীর অবস্থান নিয়ে সেই বই আজ নারীবাদী ধ্রুপদী লেখাপত্রের অন্যতম হিসেবে স্বীকৃত। সমস্ত আকাদেমিক জার্নালেই তার কোনও না কোনও জ্ঞানগর্ভ প্রবন্ধ পাওয়া যাবে। ছত্তিশগড় নিয়ে ছিল তার শেষ বইটি। সেখানে সে বলেছে শঙ্কর গুহ নিয়োগির ছত্তিশগড় মুক্তি মোর্চার সঙ্গে তার নিজের কাজকর্মের অভিজ্ঞতার কথা।

ইলিনা, তুমি আমাদের মধ্য থেকে চলে গেছ। কিন্তু তোমার ভালোবাসা, সাহস ও প্রজ্ঞা চিরকালই আমাদের অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে।

 

About চার নম্বর প্ল্যাটফর্ম 4066 Articles
ইন্টারনেটের নতুন কাগজ

Be the first to comment

আপনার মতামত...