শুভঙ্কর দাশ

আমার প্রেমিকারা ১

একা একা এই ডাউন টাউনে বসে
ভাবছি তোমাদের কথা।
মনটা বিয়ার বিয়ার করছে শুনে
রাগ করছ।
তোমার রাগে ভরে উঠছে আমার মেসেজ বক্স।

আর তুমি মুখ থম থম করে
হিসেব নিচ্ছ কটা সিগারেট খেলাম তার।
আমার মুখের বাজে গন্ধ নাকি
এই ডাউন টাউন থেকে চলে যাচ্ছে
তোমাদের আপ টাউনে।
ঘেঁটে দিচ্ছে তোমাদের নিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন সংসার।

আহা বরং বকবে বলে চলে এসো না
তোমার জন্য ভালো কফি কিনে রেখেছি আমি।
আজকাল কি কফি ভালো লাগছে না তোমার?

 

আমার প্রেমিকারা ২

ভালোবেসে দূরে থাকলে নাকি ভালোবাসা বাড়ে।
তুমি যদিও বলনি সে কথা
তবু টমেটো পোড়ার চাটনি রেঁধে
খাওয়াতে এলে না যখন তখন তো
তাই মনে হচ্ছে আমার।

অবশ্য এরকম ভালোবাসা ভালো।
ঝগড়া ঝাটি নেই,
ঘামের গন্ধে নাক কুঁচকোতে হয় না একটু্‌ও,
বলতে হয়না ডিও লাগাও না কেন?
নাকের ডাকের তোড়ে সারারাত
ঘুমের সন্ধানে কাটাতে হয়না।
এমনকি জ্বর হলে
মাথায় জলও ঢালতে হবে না।

দূর থেকে শুধু বলে দিতে হবে
বেশি করে জল খাচ্ছ তো?
বেশি করে জল খাও ভালো হয়ে যাবে।

 

আমার প্রেমিকারা ৩

যখন তোমাকে বড় দরকার তখন তুমি
হারমোনিয়াম নিয়ে গলা সাধতে বসো।
জীবনের এইসব সাধাসাধি
মুঠোর ভেতর থেকে জলের মতো
চুঁইয়ে যায় ক্রমাগত
টের পাচ্ছো তো?

তবুও সাধনা করতেই হয়
সাধ আর সাধ্যের এমনই মজা।

 

আমার প্রেমিকারা ৪

আমরা দুজনেই ছুঁতে চাইছি
একে অপরকে,
কিন্তু ছুঁলেই যদি ক্লান্তি এসে যায়
সেই ভয়ে গুটিয়ে রেখেছি
নিজেদের সমস্ত দুষ্টুমি তাপ উত্তাপ।

কেন যে এমন হলো?
আমরা কি হঠাৎ করে মিছি মিছি
আর সব্বার মতো বড় হয়ে গেলাম খুব?
যতটা বড় হলে নিজেদের চার ধারে
দেওয়ালের পাহারা বসিয়ে দেওয়া যায়।
আর এখন ওই দেওয়ালের সাথেই জমে যত ভালোবাসা আমাদের।

অথচ দেখ একটা জানালার জন্য
হাঁসফাঁস করছে ভেররটা।
যাকে তুমি অন্তর বলো
সেটা যে কী ব্যাপার তা কি তুমি জানো
গার্ল ফ্রেন্ড?

 

 

(ছবি: ইন্টারনেট)

About চার নম্বর প্ল্যাটফর্ম 3048 Articles
ইন্টারনেটের নতুন কাগজ

Be the first to comment

আপনার মতামত...