গর্ব

আশিস দাস 

 

পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা বরাবর তাদের দুর্বল ইংরেজি স্কিলের জন্য হাসির পাত্র হয়ে এসেছেন। মজা অবশ্যই মজা হিসেবে নেওয়া যায়। কিন্তু যখন একটা উপমহাদেশীয় দেশের ক্রিকেটারদের ইংরেজিতে দুর্বলতা নিয়ে ক্রমাগত ট্রল করা হতে থাকে তখন বুঝতে হয় মজ্জায় মজ্জায় কলোনিয়ালিজম কিভাবে ঢুকে আছে আজও। একজন ক্রিকেটারের কাজ খেলা, মাতৃভাষা ব্যাতীত অন্য ভাষা জানতেই হবে এরকম দাবী হাস্যকর রকমের অযৌক্তিক। তবে আমরা আর কবেই বা যুক্তিপূর্ণ কাজ করেছি?

যাইহোক এত গৌরচন্দ্রিকার কারণ হল, পাকিস্তানি ক্যাপ্টেন সরফরাজ আহমেদের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায় কদিন আগে। তাতে দেখা যাচ্ছে প্রেস কনফারেন্সের আগে উদ্বিগ্ন মুখে তিনি জানতে চাইছেন, “সারে ইংলিশ হ্যায় কেয়া?” স্বাভাবিক, তার মাতৃভাষা আলাদা এবং তিনি ইংরিজিতে ততটা স্বচ্ছন্দ নন (যেটা বিশ্বের কয়েকশো কোটি মানুষের ক্ষেত্রেই সত্যি)। তাই নার্ভাস বোধ করছেন সবার সামনে ইংরেজিতে কথোপকথন চালাতে।
তো এই ভিডিও প্রকাশ হবার পরই আমাদের দেশের সারকাজম ও উইটের ধারক ও বাহক, অর্থাৎ মিম ও ট্রল পেজগুলো, ল্যাজ উঁচিয়ে নেমে পড়ে হাস্যরসের ফল্গুধারা বইয়ে দিতে। একে পাকিস্তানি ক্যাপ্টেন, তার উপর ফটফটিয়ে ইংরেজি বলার উপর খ্যাঁচ তো আমাদের আড়াইশো বছর ধরে। অচিরেই ট্রলের বন্যা শুরু হয়। এই অবদি ছবিটা চেনাই। এরকমই হয়ে থাকে। এর পরের স্টেপে মিমের কমেন্টবক্স “কাটার বাচ্ছারা চারটে বউকে লাগানো থেকে টাইম পেলে তো ইংরেজি শিখবে” বা “ইললিটারেট পাকিস, ফাক দেয়ার মাদার” টাইপের কমেন্টে ভরে যাওয়ার কথা। একদম ছকেবাঁধা স্ক্রিপ্ট!
কিন্তু অদ্ভুতভাবে আজকের এই সময়ে দাঁড়িয়েও সেটা হয়নি!! গুচ্ছ গুচ্ছ মানুষ মিম পেজের কমেন্টে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। বলেছেন এভাবে ইংরেজি না জানার জন্য কাউকে ব্যঙ্গ করা নিজেদের মানসিক দৈন্যের প্রকাশ। একটা দুটো না, পরপর সব কমেন্টে!! ভাবা যায়! আজকের ভারতে! সাড়া এসেছে সীমান্তের ওপার থেকেও। টুইটার, ফেসবুকে বহু পাকিস্তানি ভারতীয়দের ধন্যবাদ জানিয়েছেন এই ট্রলের প্রতিবাদ করার জন্য, মানসিক দৈন্যের বিরুদ্ধে গলা তোলার জন্য! এরকম অদ্ভুতুড়ে ব্যাপার শেষ কবে দেখেছি আমার মনে পড়ছে না!

ভিডিওটি ও ট্রল পেজে ভারতীয়দের করা কমেন্টের লিঙ্ক রইল। হ্যাঁ আমিও ভারতীয়। সহ-নাগরিকদের কাজে মাথা নীচু হয়ে গেলে যেমন সেই ক্রোধ বা লজ্জা ফেসবুকে উগড়ে দিই, আজ তাদের কাজে গর্ব বোধ করছি যখন সেটাও সোৎসাহে চিৎকার করে বলব। নাহ, এখনও আশা রাখাই যায় বলুন?

http://theindianidiot.com/india-pakistan/

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!
About চার নম্বর প্ল্যাটফর্ম 3659 Articles
ইন্টারনেটের নতুন কাগজ

Be the first to comment

আপনার মতামত...